রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার | বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার ২০২৩

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার | বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার
রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার | বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার - ভুমিকা

আসসালামু আলাইকুম, আশা করি ভালো আছেন। আপনি নিশ্চয়ই বাংলাদেশ রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার বা রেলওয়ে ফোন নাম্বার খুঁজছেন? তাহলে আপনি সঠিক জায়গায়ই এসেছেন। আমাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনি বিভিন্ন জেলার রেলওয়ে ফোন নাম্বার পেয়ে যাবেন। 

এখন না পেলেও আর কিছু দিন পর বাংলাদেশের সকল জেলার রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার পেয়ে যাবেন। আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করে আপডেট জানতে পারবেন। আমাদের ওয়েবসাইটের সার্চ বাটনে ক্লিক করে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় সকল তথ্য পেয়ে যাবেন। 

আজকে আপনাদের কে জানাবো বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার বা রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার। তাহলে চলুন আমরা মূল আলোচনায় চলে যাই। 

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার বা বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার কি জেনে নেই

বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার বা বাংলাদেশ রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার হল কাস্টমার সেবা প্রদানকারী নাম্বার অর্থাৎ যেই নাম্বার থেকে যাত্রীরা তাদের প্রয়োজনীয় সকল সেবা পাবে। 

বাংলাদেশের রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার টি হলোঃ ৯৩৫৮৬৩৪ অথবা ৮৩১৫৮৫৭, এই দুটি নাম্বারই বাংলাদেশ রেলওয়ের ফোন নাম্বার। আপনি এই দুটি নাম্বারে ফোন দিয়েই আপনি বাংলাদেশ রেলওয়ে থেকে সকল সেবা নিতে পারবেন। 

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার | বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার ২০২৩

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার | বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার ২০২৩

ফোন নম্বরঃ ৯৩৫৮৬৩৪ অথবা ৮৩১৫৮৫৭

ঠিকানাঃ ঢাকা, বাংলাদেশ


তবে এই নাম্বারে ফোন দেওয়ার সময় হল অফিস টাইম, অফিস টাইম এর বাইরে ফোন দিলে সেবা পাবেন না। অফিস টাইমের মধ্যে ফোন দিয়ে সকল সেবা নিতে পারবেন।


বাংলাদেশ রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার এর থেকে আপনি যে যে সেবা নিতে পারবেন দেখে নিন

প্রিয় পাঠক, আপনারা বাংলাদেশ রেলওয়ের ফোন নাম্বার থেকে যে যে টেলিসেবা পাবেন নিচে সেগুলো দেওয়া হলঃ
  • ট্রেনের সময়সূচী: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা যেকোনও ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে তথ্য পেতে পারেন।
  • টিকেট বুকিং: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা যেকোনও ট্রেনের টিকেট বুক করতে পারেন।
  • ট্রেনের অবস্থান: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা যেকোনও ট্রেনের অবস্থান সম্পর্কে তথ্য পেতে পারেন।
  • ট্রেনের রিটার্ন টিকেট বুকিং: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা যেকোনও ট্রেনের রিটার্ন টিকেট বুক করতে পারেন।
  • ট্রেনের রিফান্ড: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা যেকোনও ট্রেনের রিফান্ড পেতে পারেন।
  • ট্রেনের খাবার ও পানীয় অর্ডার: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা যেকোনও ট্রেনের খাবার ও পানীয় অর্ডার করতে পারেন।
  • ট্রেনের লস অ্যান্ড ফাইন্ড: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা ট্রেনে হারিয়ে যাওয়া জিনিসপত্র খুঁজে পেতে পারেন।
  • ট্রেনের দুর্ঘটনা বা বিলম্বের খবর: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা ট্রেনের দুর্ঘটনা বা বিলম্বের খবর পেতে পারেন।
  • ট্রেনের অভিযোগ: রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে যাত্রীরা ট্রেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে পারেন।
বাংলাদেশ রেলওয়ে ফোন নাম্বার এর মাধ্যমে উপরোক্ত সেবা গুলো সহজেই পেয়ে যাবেন। আবারো স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বারটি হল ৯৩৫৮৬৩৪ অথবা ৮৩১৫৮৫৭, এটি বাংলাদেশ রেলওয়ে হেল্পলাইন এর বিটিসিএল ফোন নাম্বার। এই নাম্বারে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় সকল রেল সেবা পাবেন। 

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার হল একটি গুরুত্বপূর্ণ নাম্বার যা রেলওয়ে যাত্রীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের সেবা প্রদান করে থাকে। এই নাম্বারে কল করে যাত্রীরা ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট বুকিং, ট্রেনের অবস্থান, ট্রেনের রিটার্ন টিকেট বুকিং, ট্রেনের রিফান্ড, ট্রেনের খাবার ও পানীয় অর্ডার, ট্রেনের লস অ্যান্ড ফাইন্ড, ট্রেনের দুর্ঘটনা বা বিলম্বের খবর, ট্রেনের অভিযোগ ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য পেতে পারে। তাই এই নম্বরটি আমাদের সংরক্ষন করে রাখা উচিত, কারন কখন প্রয়োজনে লাগে বলা তো আর যায় না। 

আশা করি আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ পোস্টটি আপনার উপকারে আসবে। এই নিবন্ধে আপনি রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার সম্পর্কে জানতে পারলেন। আমাদের আজকের পোস্টটি সম্পর্কে কোন মন্তব্য থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন, ধন্যবাদ।

আর এই গুরুত্বপূর্ণ পোস্টটি আপনার ফেইসবুক পেইজে শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিবেন।
Next Post Previous Post
1 Comments
  • Anonymous
    Anonymous 14/1/24

    মুলাডুলি রেলস্টেশন, পাবনা হয়ে ঢাকাগামী আন্তঃনগর ট্রেন নীল সাগর এক্সপ্রেস এর টিকেট কবে নাগাদ অনলাইন হবে? তা জানতে চাই। মুলাডুলি স্টেশন হতে ঢাকা যাওয়ার জন্য নীল সাগর এক্সপ্রেস এর টিকিট অনলাইন না হওয়ায়, টিকিট গুলো কয় দিন আগে, কোন সময় বিক্রি হচ্ছে? কিছুই সাধারণ যাত্রীগণ জানতে পারেন না। ০৭ দিন আগে যোগাযোগ করেও টিকিট পাওয়া যায় না। অথচ স্টেশনের একটি চক্রের সহযোগিতায় যাত্রী বহনকারী ভ্যান ও অটো রিক্সাচালক দের নিকট ৩/৪ দিন আগে যাত্রীর তথ্য দিলে অনেক চড়ামূল্যে টিকিট পাওয়া যায়। এছাড়া টিকিট পাওয়ার কোন উপায় নাই। মূলাডুলি স্টেশনে আরও কয়েকটি ট্রেন স্টপেজ এর ব্যবস্থা করা আবশ্যক। যাত্রীর সংখ্যার তুলনায় ট্রেন টিকিট কম হওয়ায় এবং টিকিট অনলাইন না হওয়ায় যথাযথ মাধ্যমে টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনার অনুরোধ করছি।

Add Comment
comment url
Facebook Page
telegram
প্রিমিয়াম সাজেশন গ্রুপ [9 to 12]

আপনি যদি নবম শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণির একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তাহলে নিচের দেওয়া গ্রুপে জয়েন করুন। এই গ্রুপে সকল প্রিমিয়াম সাজেশন এবং নোট পেয়ে যাবেন। আশা করি আপনার পরীক্ষায় অনেক উপকার হবে।

গ্রুপ : এখানে ক্লিক করুন